HomeOtherCrimeচটজলটি মোটা থেকে রোগা হওয়ার টোপ! মার্কিনিদের ফাঁসিয়ে লুঠ কোটি কোটি টাকা!

চটজলটি মোটা থেকে রোগা হওয়ার টোপ! মার্কিনিদের ফাঁসিয়ে লুঠ কোটি কোটি টাকা!

আন্তর্জাতিক কল সেন্টারের আরও একটি প্রতারণার চক্রের পর্দা ফাঁস করল উত্তরপ্রদেশ ক্রাইম ব্রাঞ্চ। ঘটনার জেরে চার ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। কানপুরের কাকাদেবে কল সেন্টার মারফত আন্তর্জাতিক প্রতারণার ফাঁদ চালিয়ে যাচ্ছিল ওই চার দুষ্কৃতী। আমেরিকান সেজে কমপক্ষে ১২ হাজার মার্কিন নাগরিককে একেবারে ঘোল খাইয়ে ৯ লাখ ডলার অর্থাৎ ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ৬৭ কোটি টাকা লুঠ করেছে কানপুরিয়ার এই দুষ্কৃতীদের দল। এই প্রতারণা চক্রের মাস্টারমাইন্ড যশরাজও পুলিশের জালে ধরা পড়েছে বলে খবর।

পুলিশ কমিশনার অসীম অরুণা এ বিষয়ে জানিয়েছেন, রীতিমতো প্রফেশনাল কায়দায় নকল ওয়েবসাইট এবং কল সেন্টার খুলে বসেছিল ওই চার প্রতারক। তাদের নিশানায় ছিলেন প্রধানত মার্কিন নাগরিকেরা। এই চক্রে ক্লায়েন্টদের সামলানোর কাজ করতেন যশরাজ। নকল ওয়েবসাইট এবং ফিশিংয়ে দক্ষ বাকি তিনজনের দায়িত্ব ছিল টেকনিক্যাল দিকটি সামলানো। মার্কিন নাগরিকদের ফোনের ডেটা হ্যাক করে কখনও রোগা হওয়ার সহজ উপায় কিংবা লম্বা হওয়ার প্রক্রিয়া- এইসব ধরনের ফিশিং অ্যাডের পপ আপ পাঠানো হত তাদের ফোনে।

মার্কিনীরা লোভে পড়ে কল সেন্টারের ওই অ্যাডের ফাঁদে পড়লেই লুঠ হবে তাঁদের টাকা। যশরাজ ওই ফাঁদে পড়া বিদেশিদের টাকা কিভাবে কোনপথে কল সেন্টারের অ্যাকাউন্টে আসবে সেই বিষয়টিকে খতিয়ে দেখত। আর সেইসঙ্গে কথাবার্তায় বেশ পটু যশরাজের শিক্ষিত আমেরিকান অ্যাকসেন্ট মার্কিন নাগরিকদের মনে কোনও সন্দেহের বিজ জাগাত না।

এই প্রতারণার কাজে তাদের সাহায্য করত যশরাজের মার্কিন এজেন্ট। মার্কিন নাগরিকদের বিভিন্ন সার্ভিস প্যাকেজ কেনার জন্য নিজের কথার জালে ফাঁসিয়ে তাঁদের রাজি করাত যশরাজ। এরপরে ওই বিদেশিরা আমেরিকান পেমেন্ট গেজেট ব্যবহার করে টাকা পাঠালে সেটা জমা পড়ত যশরাজের মার্কিন এজেন্টের অ্যাকাউন্টেই।

প্রতারণার ছক কষে নেওয়া ওই টাকার ৩০ শতাংশ নিজের কাট রেখে বাদ বাকি ৭০ শতাংশ টাকা যশরাজদের অ্যাকাউন্টে পাঠিয়ে দিত ওই এজেন্ট।এমনকি এই প্রতারকরা আমেরিকান ডলারগুলিকে ভারতীয় মুদ্রায় পরিবর্তন করার জন্য বিদেশের একটি ক্রেডিট কার্ডও বানিয়ে রেখেছিল। গত এক বছরে এই প্রতারকদের দলটি মার্কিন নাগরিকদের বোকা বানিয়ে কোটি কোটি টাকা লুঠ করেছে তাঁদের কাছ থেকে। বেশ সুপরিকল্পিত ভাবে লোক ঠকানোর কাজ চালিয়ে এলেও শেষ রক্ষা কিন্তু হল না। দীর্ঘদিন ধরে অভিযোগকে খতিয়ে দেখে জোরদার তদন্তে নেমে এই চার প্রতারককে হাতেনাতে গ্রেফতার করে পুলিশ।

Image source: Wikipedia

আরো পড়ুন: আবারো জোরালো কটাক্ষের মুখে বামনেতা শতরূপ ঘোষ।

RELATED ARTICLES

জিমে গোপনেই তোলা হচ্ছিল এক যুবতীর ভিডিও!!! ধরা পড়লো...

জিমে-তেই গোপনে তোলা হচ্ছিল এক যুবতীর ভিডিও তুলছিল জনৈক ব্যক্তি। অবশ্য তিনি এই ভিডিওটি রেকর্ড...

স্নানের পরে স্ত্রী তোয়ালে দেয়নি বলে রাগের বশে স্ত্রীকে...

স্নানের পরে স্ত্রী তোয়ালে দেয়নি, আর সেই রাগের বশে স্ত্রীকে খুন করে বসলেন এই...

অবসর যাপনে ফোনে নীলছবিতে আসক্ত সার্বনাশ!

ঘরবন্দি অবস্থায় নেটমাধ্যমে সময় কাটানোর জন্য পর্নোগ্রাফিতে আসক্ত বাড়ছে জেনওয়াইদের। বিশেষ করে স্মার্টফোন কোনোভাবে...

রণবীরের সাথে কেন থাকেন না মা নিতু কাপুর? ফাঁস...

নিতু কাপুরকে তো আমরা সবাই চিনি। বলিউডের এককালের স্বনামধন্য অভিনেত্রীদের মধ্যে অন্যতম হলেন তিনি।...

সুরা প্রেমীদের জন্য সুখবর! গোয়ার সৈকতে তৈরি হল ভারতের...

গোয়ার সমুদ্র সৈকত, সিফুড, কার্নিভ্যাল, পর্তুগিজ ক্যালচার, গির্জা এই সবকিছুর জন্যই খুবই বিখ্যাত। এছাড়াও...

নিজের অভিনয় দেখে নিজেই ভয়ে আঁতকে উঠেছিলেন শাহরুখ খান!...

ছোটপর্দায় অভিনয়ের মাধ্যমে অভিনয় জগতে পা রেখেছিলেন তিনি। স্রেফ দক্ষ অভিনয় আর গালে টোল...