HomeOtherCrimeস্কুল থেকেই শিশু পাচারের ছক! গ্রেফতার শিক্ষক-শিক্ষিকা-সহ ৮

স্কুল থেকেই শিশু পাচারের ছক! গ্রেফতার শিক্ষক-শিক্ষিকা-সহ ৮

 

শিক্ষক-শিক্ষিকাদের সমাজ গড়ার কারিগর বলা হয়ে থাকে। অথচ সেই শিক্ষক-শিক্ষিকারই বিরুদ্ধে উঠল শিশু পাচারের মতো মারাত্মক এক অভিযোগ! এটা কিন্তু কোনো মৌখিক অভিযোগ নয়, পাচার হওয়া শিশু সহ পুলিশের হাতে ধরাও পড়েছেন বাঁকুড়ার জহর নবোদয় বিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ এবং এক শিক্ষিকা সহ ৮ জন। বাঁকুড়া সদর থানার কালপাথর অঞ্চলে এই ঘটনার জেরে মারাত্মক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়েছে।

পুলিশ সূত্রে খবর, ধৃত অধ্যক্ষের নাম হল কমল কুমার রাজোরিয়া। তিনি প্রচুর টাকার বিনিময়ে শিশুদের বিক্রি করতেন বলে অভিযোগ। আর তাঁর সঙ্গে এই কাজে জড়িত থাকার অভিযোগের দরুন জহর নবোদয় বিদ্যালয়ের এক শিক্ষিকা সহ আরো ৭ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। যাদের মধ্যে ওই অধ্যক্ষ-সহ তিনজনকে ৭ দিনের পুলিশী হেফাজত আর বাকিদের ২ অগাস্ট পর্যন্ত জেল হেফাজত দিয়েছেন বিচারক। তাঁদের কাছ থেকে ৫টি শিশুকেও উদ্ধার করা হয়েছে বলে খবর।

স্থানীয় সূত্রে খবর, রবিবার দুপুরে দুটি শিশুকে জোর করে একটি মারুতি ভ্যানে তোলার চেষ্টা করছিলেন অভিযুক্ত অধ্যক্ষ কমল কুমার রাজোরিয়া। ওই ঘটনাটি তখন এলাকাবাসীর নজরে আসে। তারপর এলাকাবাসীর তৎপরতায় মারুতি ভ্যান থেকে চার শিশু সহ দু’জন মহিলাকে উদ্ধার করা হয়। ঘটনার পর পালিয়ে যান অধ্যক্ষ কমল কুমার রাজোরিয়া। তারপর এলাকাবাসী বাঁকুড়া সদর থানায় ওই বিষয়টি সম্পর্কে জানালে পুলিশ কমল কুমার রাজোরিয়াকে তাদের হেফাজতে আটক করে। এরপর তাঁকে দীর্ঘক্ষণ জেরা করার পরে উঠে আসে এই চাঞ্চল্যকর তথ্য।

পুলিশ সূত্রে খবর পাওয়া গেছে, দুর্গাপুরের মেনগেট এবং কাদারোড এলাকা থেকে শিশুদের কিনে এনে রাজস্থান সহ বিভিন্ন জায়গায় পাচার করার ছক কষেছিল অধ্যক্ষ কমল কুমার রাজোরিয়ার। কিছুদিন আগেই কাদারোড এলাকা থেকে একটি শিশুকে জোড় করে এনে তাঁর স্কুলেরই নিঃসন্তান শিক্ষিকা সুষমা শর্মাকে বিক্রি করেছিলেন এই অধ্যক্ষ। এরপর আরও দুটি শিশুকে একইভাবে বিক্রি করার উদ্দেশ্যে স্কুল চত্বরে থাকা অধ্যক্ষর কোয়ার্টারে এনে রাখা হয় বলে অভিযোগ ওঠে। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ অনুমান করছে, নিঃসন্তান দম্পতিদের থেকে মোটা টাকার বিনিময়ে শিশু বিক্রির জাল পেতেছিলেন অভিযুক্ত শিক্ষক কমল কুমার রাজোরিয়া। এই চক্রের সঙ্গে আরও কারা জড়িত আর কীভাবে এর জাল বিস্তার হয়েছিল, সেই বিষয়ে তদন্ত শুরু করেছে বাঁকুড়া সদর থানার পুলিশ কর্তৃপক্ষ। পাচার হওয়া শিশুগুলিকে যৌন হেনস্তা করা হত কিনা তা জানতে ওই পাঁচটি শিশুর মেডিক্যাল পরীক্ষা করানো হবে বলে খবর।

Image source: Wikipedia

আরো পড়ুন: ঈদ উপলক্ষে বানিয়ে ফেলুন ক্ষীর, ফ্রুট ক্রিম ও আমের হালুয়া

RELATED ARTICLES

বিয়ের বয়স হয়নি, অবৈধভাবে হোটেলে বিয়ে সারলেন তরুণ তরুণী,...

মেয়ের বয়স প্রায় ২০ আর ছেলের বয়স সবে ১৯ বছর ৫ মাস। দুই তরুণ...

মাদক কান্ড আরিয়ান খানকে সমর্থন করলেন সালমান খানের প্রাক্তন...

গত ২ অক্টোবর শনিবার মাঝ রাতেই আরব সাগরের তীরেতে বিলাসিতায় মত্ত ছিলেন শাহরুখ পুত্র...

শেষ মুহূর্তের কেনাকাটা কি এখনো বাকি? সাবধান ! শহরতলীর...

আপনি কি এখন পূজো মার্কেটিংয়ে ব্যস্ত?শেষ মুহূর্তের কেনাকাটা কি এখনো বাকি? সাবধান ! শহরতলীর...

রণবীরের সাথে কেন থাকেন না মা নিতু কাপুর? ফাঁস...

নিতু কাপুরকে তো আমরা সবাই চিনি। বলিউডের এককালের স্বনামধন্য অভিনেত্রীদের মধ্যে অন্যতম হলেন তিনি।...

সুরা প্রেমীদের জন্য সুখবর! গোয়ার সৈকতে তৈরি হল ভারতের...

গোয়ার সমুদ্র সৈকত, সিফুড, কার্নিভ্যাল, পর্তুগিজ ক্যালচার, গির্জা এই সবকিছুর জন্যই খুবই বিখ্যাত। এছাড়াও...

নিজের অভিনয় দেখে নিজেই ভয়ে আঁতকে উঠেছিলেন শাহরুখ খান!...

ছোটপর্দায় অভিনয়ের মাধ্যমে অভিনয় জগতে পা রেখেছিলেন তিনি। স্রেফ দক্ষ অভিনয় আর গালে টোল...