HomeHEALTHজেনে নিন সিজারিয়ান মা 'এর যত্নের বেশ কিছু বিশেষ টিপস

জেনে নিন সিজারিয়ান মা ‘এর যত্নের বেশ কিছু বিশেষ টিপস

সন্তান জন্মের পর শিশু সবার মনোযোগ কেড়ে নেয় ,তখন আমরা সবাই শিশুর তত্ববধানে লেগে পরি ।এমন সময় বাদ পরে যায় মায়ের যত্ন। এমনকি মা ও তার শিশুর কথা ভাবতে ভাবতে নিজের খেয়াল রাখতে ভুলে যায়। কিন্তু যে মা ১০ মাস ১০ দিন একটা প্রানকে নিজের মধ্যে লালন পালন করে ,বড়ো করে একটি প্রানকে পৃথিবীর আলো দেখায় তার যত্ন সন্তান জন্মের পর ও নেওয়া জরুরি। বিশেষ করে যে মায়ের সিজারিয়ান অপারেশনের (সন্তান প্রসবে অস্ত্রোপচার) মাধ্যমে সন্তান হয়েছে। তাদের পুরোপুরি সুস্থ হতে কিছুটা সময় লেগে থাকে। আসুন জেনেনি সিজারিয়ান মায়ের যত্নে কি কি পদক্ষেপ গ্রহণ করবেন।

১. অনেকেরই ধারণা, সিজারিয়ানের পর বেশি হাঁটাহাঁটি একদম ভালো নয়, বিশ্রামে থাকতে হয়। আসলে এই ধারণাটি সম্পূর্ণ ভুল। প্রসব করার পরদিন থেকেই হালকা হাঁটাচলা শুরু করা উচিত। এতে নানা জটিলতা কমে।

২. নিজে নিজে বাথরুমে যাওয়া প্রাকটিস করবেন। প্রথম কয়েক দিন মা বেল্টের ব্যবহার করলে এই হাঁটাহাঁটি আরেকটু স্বচ্ছন্দ হবে।

৩. প্রথম কয়েক ঘণ্টা নরম খাবার খান যেমন স্যুপ, জাউ যাতে বমি না হয়। এরপর আসতে আসতে স্বাভাবিক খাবারে ফিরে আসা উচিত।

৪. সন্তান জন্মের পর মা বুকের দুধ খাওয়ানো শুরু করেন।তাই তাকে যথেষ্ট পুষ্টিকর খাবার ও আমিষসমৃদ্ধ সুষম খাবার খেতে হবে।

৫. সিজারিয়ানের পর কোষ্ঠকাঠিন্য একটি বড় সমস্যা হিসেবে দেখা দিতে পারে। তাই বেশি করে আঁশযুক্ত খাবার, ফলমূল, শাক–সবজি, ইসবগুলের ভুসি ইত্যাদি খাওয়া উচিত।

৬. সেলাইয়ের কাঁচা জায়গার আলাদা যত্নের প্রয়োজন। প্রতিদিন হালকা গরম পানি দিয়ে জায়গাটা পরিষ্কার রাখুন। কাপড়ে যাতে ঘষা না লাগে, সেক্ষেত্রে হালকা সুতির নরম পোশাক পরুন।

৭. প্রথম দিকে জায়গাটা ফোলা ও কালো দেখাতে পারে, তবে ছয় থেকে আট সপ্তাহের মধ্যে ঠিক হয়ে যায় আস্তে আস্তে। যদি ঠিক না হয় লাল হয়ে পুঁজ বা পানি বের হয় বা ফুলে যায়, তবে অবশ্যই চিকিৎসকের শরণাপন্ন হবেন।

৮. কাটা জায়গায় একটু অসাড় অনুভূতি বা ব্যথা অনুভূত হতে পারে । হাঁচি–কাশি দেওয়ার সময় জায়গাটাতে হাত বা বালিশ সাপোর্ট দেওয়া ভালো।

৯. বেশি সিঁড়িতে ওঠা নামা , ব্যায়াম ,ভারী জিনিস তোলা , এসমস্ত কাজ ভুলেও করবেন না

প্রত্যেকটি সিজারিয়ান মা এর ছয় থেকে আট সপ্তাহ সময় খুবই গুরুত্বপূর্ণ। সঠিক সচেতনতা ও যত্ন নিন তা নাহলে নানা জটিলতায় ভুগতে পারেন।

RELATED ARTICLES

মাত্র ১ সপ্তাহের মধ্যে নিজের ২ কিলো বাড়তি ওজনকে...

প্রত্যেকটি মানুষের মনের ইচ্ছে হলো নিজের বাড়তি মেদকে অথবা ওজনকে (weight) জড়িয়ে ফেলা। কিন্তু এই...

জেনে নিন শরীর ঠিক রাখতে বেদানার উপকারিতা কী কী?

জানেন বেদানার উপকারিতা কী কী? শীতের মরশুমে বাজার ভরে গিয়েছে একাধিক ফলে(Fruit)। যার মধ্যে...

রুক্ষ ত্বকের (Dry Skin) সমস্যায় ভুগছেন? তাহলে এই DIY...

অনেক মানুষই আছেন যাঁরা রুক্ষ ত্বকের (Dry Skin) সমস্যায় ভোগেন। আপনিও যদি সেই সমস্ত মানুষদের...

ওজন কমাতে খাদ্যতালিকা থেকে ভাত বাদ দিচ্ছেন ! জেনেনিন...

আমাদের দেশের প্রধান খাদ্য ভাত । আমরা যাই খাই খাদ্যতালিকায় একটু হলেও ভাত রাখি...

কৈলাস পর্বতে স্যাটেলাইট লাগিয়ে কিদৃশ্য দেখে চমকে গেলেন নাসা...

কৈলাস পর্বতে র নাম সবার জানা হিন্দুদের মতে এই কৈলাস পর্বতে দেবাদিদেব মহাদেব বিরাজমান।...

জেনেনিন কিভাবে ওষুধ না খেয়ে ধূমপান ত্যাগ করবেন !!

সারা পৃথিবী জুড়ে বছরের পর বছর ক্যানসারে প্রান হারাচ্ছে কয়েক লক্ষ্যাধিক মানুষ। প্রতিদিন শেষ...