Advertisement ggg
HomeLife styleরাশি অনুযায়ী দূর করুন মানসিক চাপ, দেখুন আপনার রাশি কি বলছে?

রাশি অনুযায়ী দূর করুন মানসিক চাপ, দেখুন আপনার রাশি কি বলছে?

আজকের দিনে মানসিক সমস্যা বা মানসিক চাপ প্রায় জল-ভাত হয়ে গিয়েছে বলাই চলে। এর নেপথ্যে দায়ী মানুষের লাইফস্টাইল। আমরা এমন জীবনযাপনে ধীরে ধীরে অভ্যস্ত হয়ে উঠেছি, যার প্রভাব পড়ছে মনের উপর। কিন্তু একটা কথা জানলে অবাক হবেন যে, আমাদের রাশিচক্রের এক-একটা রাশির জাতক-জাতিকাদের মানসিক সমস্যা এক-এক ধরনের হয়ে থাকে৷ আর সেই মানসিক চাপ কাটানোর কৌশলও বেশ ভিন্ন৷ তাই জেনে রাখা ভাল, রাশি অনুযায়ী আপনার মানসিক চাপের কারণগুলি কী কী হতে পারে। 

 সিংহ (Leo): 

জুলাই ২৩ থেকে অগাস্ট ২২সিংহ রাশির জাতক-জাতিকারা যে কাজই হাতে করুক না কেন, সব কাজই ভালবেসে করে এরা৷ কিন্তু এরা সকলকে পরিচালনা করতে ভালবাসে৷ অর্থাৎ এরা মধ্যমণি হওয়ার চেষ্টা করে৷ কিন্তু সেটা না হলেই এদের মানসিক চাপ সৃষ্টি হয়৷ সেক্ষেত্রে সব কিছু নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা না করে সেই মুহূর্তটায় বাঁচতে হবে এবং ছোট ছোট জিনিসেই আনন্দ খুঁজে নিতে হবে। 

মেষ (Aries): 

মার্চ ২১ থেকে এপ্রিল ১৯, মেষ রাশির জাতক-জাতিকারা অত্যন্ত সাহসী হয়ে থাকে৷ আর জন্মসূত্রেই এরা নেতৃত্ব দেওয়ার অধিকারী৷ এরা বরাবরই স্বাধীনচেতা এবং দৃঢ় ব্যক্তিত্বের মানুষ হয়৷ প্রত্যেকটি কাজের ক্ষেত্রে নিজে এগিয়ে এসে দায়িত্ব নিতে চায় এরা৷ এ বার সেই কাজে অতিরিক্ত ভাবে ঢুকে পড়লে অনেক সময় মানসিক চাপের শিকার হয়।  এদের রাতের ঘুমও নষ্ট হয়ে থাকে। জটিল পরিস্থিতিতে  এরা শরীরচর্চার দিকে মন দিলে পরিস্থিতি সামলাতে পারে। 

বৃষ (Taurus): 

এপ্রিল ২০ থেকে মে ২০, এই রাশির জাতক-জাতিকারা অত্যন্ত বাস্তববাদী এবং দায়িত্ববান হয়ে থাকেন৷ এই মানুষগুলির উপর সহজেই নির্ভর করা যায়৷ কিন্তু কোনও কিছুতে বদল এলে মানিয়ে নিতে এদের যথেষ্ট সমস্যা হয়৷ এসময় এরা একটু দিশেহারা হয়ে পড়ে৷ ফলে নানা প্রকার মানসিক সমস্যার সম্মুখীন হয় এরা৷ সে সব ক্ষেত্রে মেডিটেশন অথবা কোনও কিছুতে মনঃসংযোগ করলে সমস্যা অনেকটা মিটতে পারে৷  

মিথুন (Gemini): 

মে ২১ থেকে জুন ২০, মিথুন রাশির জাতক-জাতিকারা অত্যন্ত তীক্ষ্ণ বুদ্ধির অধিকারী৷ পরামর্শ আদান-প্রদান করে কাজ করতে পছন্দ করে এরা৷ কিন্তু কোনও সিদ্ধান্ত নিতে গেলে যদি সিদ্ধান্তহীনতার মতো সমস্যা তৈরি হয়, তা হলে সেটাও তাদের মানসিক চাপের সৃষ্টি করে। ফলে ওজন বৃদ্ধি, ত্বকের সমস্যার মতো না রকম অসুস্থতায় ভোগে এরা৷ এই পরিস্থিতিতে তাদের উচিত পরিবার ও ঘনিষ্ঠ বন্ধু-বান্ধবদের সঙ্গে নিজেদের সমস্যার কথা ভাগ করে নেওয়া৷

কর্কট (Cancer): 

জুন ২১ থেকে জুলাই ২২, কর্কট রাশির জাতকেরা খুবই আবেগপ্রবণ হয়ে থাকেন৷ এরা আশপাশের মানুষের প্রতি অত্যন্ত বিশ্বস্ত প্রকৃতির হন৷ নরম মনের এই মানুষগুলোর সঙ্গে যদি কেউ বিশ্বাসঘাতকতা করে, তাহলে তারা প্রচণ্ড ভাবে নিজেদের প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে৷ অনিদ্রা, দুঃস্বপ্ন, ভেঙে পড়া- এমন সব সমস্যার সম্মুখীন হতে পারে এই রাশির জাতকেরা৷ এমন হলে বাড়ির বাইরে প্রকৃতির কোলে সময় কাটালে এদের মানসিক চাপ অনেকাংশে কেটে যাবে৷  

কন্যা (Virgo): 

অগাস্ট ২৩ থেকে সেপ্টেম্বর ২২ এই রাশির জাতক-জাতিকারা কঠোর পরিশ্রমী এবং অত্যন্ত বাস্তববাদী হয়ে থাকে৷ সকলকে শ্রদ্ধা করে এরা৷  অতিরিক্ত কাজ এবং অন্যের জন্য অতিরিক্ত চিন্তার ফলে এদের মানসিক চাপ তৈরি হয়৷ এই সময় মন অন্য দিকে ঘুরিয়ে দিতে এরা ছবি আঁকা, বাগান করার মতো কাজ করতে পারে৷

তুলা (Libra): 

সেপ্টেম্বর ২৩ থেকে অক্টোবর ২২, এই রাশির জাতকেরা সকলকে সাহায্য করতে ভালবাসে এবং এরা অত্যন্ত যুক্তিবুদ্ধি দিয়ে সব কিছু বিচার করে থাকে৷ কোনও রকম ঠাট্টা-তামাশা, এই মানুষগুলির মনের উপর চাপ সৃষ্টি করে৷ যখনই এদের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করা হয় তখন মানসিক ভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়ে এরা। মেডিটেশন, শরীরচর্চা, বন্ধুদের সঙ্গে মেলামেশা করলে এই পরিস্থিতি অনেকটাই কাটানো যাবে৷

বৃশ্চিক (Scorpio): 

অক্টোবর ২৩ থেকে নভেম্বর ২১, বৃশ্চিক রাশির জাতকেরা খুবই গভীর এবং রহস্যময় ব্যক্তিত্বের অধিকারী হয়৷ সম্পর্ক, কাজ, নিজেদের পছন্দ – সব ক্ষেত্রেই এরা খুবই আবেগপ্রবণ হয়৷ অনেক সময় সীমাও অতিক্রম করে যায় সেই মানুষগুলি৷ যার প্রভাবে বৃশ্চিক রাশির জাতকদের মনে হতে থাকে। মনে করেন তাদের গোপনীয়তায় কেউ হস্তক্ষেপ করছে৷ এই পরিস্থিতিতে নতুন হেয়ারকাট, শপিং অথবা পছন্দের গান এদের মানসিক চাপ অনেকটাই কম করবে৷

ধনু (Sagittarius): 

নভেম্বর ২২ থেকে ডিসেম্বর ২১, এই রাশির জাতক-জাতিকারা সাধারণত খুবই উদার প্রকৃতির হয়ে থাকে৷ আর বিলাসবহুল জীবনযাপন পছন্দ করে৷ এদের মেজাজে একটা ভারসাম্য থাকলেও এরা খুব সহজেই ঘাবড়ে যায়৷ এর যেহেতু স্বাধীনচেতা। তাই স্বাধীনতা হারানোর আশঙ্কায় মানসিক সমস্যার শিকার হয়৷ এই সময় নতুন জায়গায় ঘুরে আসা অথবা কয়েক পাক হেঁটে আসা, সমস্যার সমাধান করবে৷ 

মীন (Pisces): 

ফেব্রুয়ারি ১৯ থেকে মার্চ ২০, মীন রাশির জাতক-জাতিকারা সাধারণত শিল্পী মনস্ক হয়৷ এরা স্বপ্ন দেখতে ভালবাসে এবং অত্যন্ত সংবেদনশীল প্রকৃতির হয়৷ তবে এদের যদি কোনও সমস্যা আসে, তখনই মানসিক চাপের শিকার হয় তারা৷ এমন পরিস্থিতিতে পড়লে নিজেদের মনের ভাব কোথাও লিখে ফেললে মানসিক চাপ অনেকটা কেটে যায়৷

কুম্ভ (Aquarius): 

জানুয়ারি ২০ থেকে ফেব্রুয়ারি ১৮, কুম্ভ রাশির জাতকেরা খুবই দয়ালু প্রকৃতির হয়, কিন্তু ভুলভাল আলোচনা অথবা কাজে এদের পাওয়া যায় না৷ কিন্তু নিজের মনের মধ্যে চলা অন্তর্দ্বন্দ্ব এড়িয়ে চলার কারণে মানসিক সমস্যা তৈরি হয়৷ তার থেকে প্যানিক অ্যাটাক, বুকে ব্যথার মতো উপসর্গ দেখা দেয়৷ মানসিক চাপ কাটাতে তাই বেড়িয়ে আসতে পারে  এরা। 

মকর (Capricorn): 

ডিসেম্বর ২২ থেকে জানুয়ারি ১৯, মকর রাশির জাতক-জাতিকারা খুবই দায়িত্বশীল হয়৷ এরা অল্পেতে একেবারেই খুশি হয় না৷ আর কারওর কারণে যদি এদের অসুবিধা হয়, তা হলে তার থেকে নিজেকে দূরে সরিয়ে নেয় এরা৷ এদের আকাঙ্খা পূরণ না-হলে মানসিক ভাবে ভেঙে পড়ে এরা৷ এমন পরিস্থিতিতে সময় বার করে বুঝতে হবে, কি করলে ভাল থাকা যায়৷

Image Source : Facebook

আরও পড়ুন : আঙুলের সংকেতে কিভাবে বলবেন ‘কিং খান’এর নাম? 

RELATED ARTICLES

জেনেনিন কোনো রকম কেমিক্যাল ছাড়া ঘন চাপ দাড়ি পাওয়ার...

চুল বা দাড়ি যদি কোনো কারণে পাতলা হয়ে যায় বা উঠে যায় বা যদি...

নরবলি কি ? এর ইতিহাস বা কি ছিল ?...

আমরা পৌরাণিক কাহিনী বা বিভিন্ন রূপকথার গল্পে নরবলির কথা শুনেছি । বর্তমানে এর প্রচলন...

শক্তিগড়ের ল্যাংচা খেয়েছেন তো ! জানেন এর জনপ্রিয়তার ইতিহাস...

অতিথি আপ্রায়ন থেকে বিদায় সবেতেই লাগে মিষ্টি। মিষ্টিমুখ ছাড়া কোনো শুভকাজই যেন হয় না...

Must Read

স্কুলে ‘সেক্স এডুকেশন’এর অভাব! ‘বেশ্যালয় কি?’ প্রশ্ন লারা দত্ত-...

জিজ্ঞাস্য প্রচুর লারা দত্তর কন্যার সায়রার। ছোট্ট সায়রা চার বছর বয়সেই ‘ডিভোর্স’ শব্দের মানে...

মেয়েদের সৌন্দর্যে তুলনার পরিণাম প্রাচীন যুগ থেকেই সাংঘাতিক! ট্রয়...

রূপকথার বিখ্যাত নগরী হল ট্রয়। প্রাচীন এশিয়া মাইনরে এর অবস্থান। বর্তমান এই জায়গা হল...

ছোটবেলা থেকেই পাত্রীর নেই দু’টি হাত, প্রতিবন্ধকতাকে দূরে ঠেলে...

নানান ছকভাঙা ঘটনার সাক্ষ্য বহন করে চলেছে আধুনিক সমাজ। বিশেষ করে ধার্মিক রীতির বেড়াজালের...