Advertisement ggg
HomeCelebrityএবার ট্রোলের শিকার হলেন অভিনেত্রী তনুশ্রী, নুসরাত ও শ্রাবন্তী!

এবার ট্রোলের শিকার হলেন অভিনেত্রী তনুশ্রী, নুসরাত ও শ্রাবন্তী!

গতকালই স্পষ্টভাবে জানিয়ে দেয় অভিনেত্রী তনুশ্রী চক্রবর্তী যে তিনি রাজনীতি ছেড়ে দিচ্ছেন।

এখন থেকে তিনি নাকি শুধু অভিনয় নিয়েই নিজেকে ব্যস্ত রাখতে চান।

তিনি নিজেকে আপাতত কোনো রাজনৈতিক বিষয়ে জড়াতে চান না।

এই কথাটি ভাইরাল হতে না হতেই ২৪ ঘন্টার মধ্যেই নজরবন্দি হল তিন অভিনেত্রী এক ফ্রেমে।

উল্লেখিত অভিনেত্রীদের মধ্যে রয়েছে তনুশ্রী চক্রবর্তী, নুসরত জাহান ও শ্রাবন্তী চ্যাটার্জী।

ইতিমধ্যেই তুমুল ভাইরাল হয়েছে এই ফটোটি।

জানা গিয়েছে, অন্তঃসত্ত্বা নুসরাতের সঙ্গে প্রায়ই সময় কাটাতে আসেন অভিনেত্রী তনুশ্রী চক্রবর্তী ও শ্রাবন্তী চ্যাটার্জী।

যেদিন প্রথমবার নুসরাতের বেবি বাম্পের ছবি প্রকাশ্যে আসে সেদিন থেকেই তিনি অভিনেত্রী একসাথে রয়েছেন।

সেবারও একটি ছবি ভাইরাল হয় যেখানে একদিকে ছিল শ্রাবন্তী অন্যদিকে ছিল তনুশ্রী মাঝে ছিল নুসরাত।

এরপর আবারো তিন অভিনেত্রী ছবি একসাথে প্রকাশ্যে আসে।

সেই ছবি ভাইরাল হতে না হতেই গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ে গোটা নেট দুনিয়ায়।

ইতিমধ্যেই তাঁদের চরম ট্রোলের সম্মুখীন হতে হয়।

জানা গিয়েছে, এই ছবিটি নিজেই শেয়ার করেন অভিনেত্রী তনুশ্রী চক্রবর্তী।


আর এই ছবি শেয়ার হওয়া মাত্রই শুরু হয়ে যায় চরম ট্রোল।

শেয়ার করা ওই ছবির মধ্যে একজন ব্যক্তি কমেন্ট করে লিখেছেন, ‘রতনে রতন চেনে’।

আবার অন্য আরেকজন বক্তব্য করেছেন,  ‘এই তিনজনের সঙ্গে ঘোরে বলে নুসরতের বিয়ে টেকেনি’।

অনেকেই এমন সন্দেহ করছেন যে তনুশ্রী ও শ্রাবন্তী প্ল্যান করে নুসরাতকে নিজেদের দলে টানার চেষ্টা করছেন।

গতকাল অর্থাৎ বৃহস্পতিবার, অভিনেত্রী তনুশ্রী চক্রবর্তীর প্রকাশ করেন যে তিনি রাজনীতি ছেড়ে দিচ্ছেন।

সংবাদ মাধ্যমকে তিনি জানিয়েছেন, যে কোনো রকমের রাজনীতির রং থেকে দূরে থাকতে চান তিনি।
তাঁর মতে ভালো করে পড়াশোনা না করে রাজনীতিতে আসা একদমই উচিত নয়।

আপাতত তিনি অভিনয় জগতেই নিজেকে ব্যস্ত রাখতে চান বলে জানিয়েছেন।

আমরা সবাই জানি বিধানসভা ভোট নির্বাচনের আগে বিজেপিতে যোগদান করেন অভিনেত্রী তনুশ্রী চক্রবর্তী।

এরপরে তিনি জানিয়েছেন,

তাঁকে নাকি বিজেপিতে আসতে প্রভাবিত করেছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি তথা বিজেপির আদর্শ।

তিনি নাকি অনেক সামাজিক কাজ করেছেন কিন্তু সে বিষয়ে বড়াই করা বিন্দুমাত্র চিন্তা ভাবনা তাঁর নেই।

তাঁর মতে যখন অনেক মানুষের জন্য কাজ করতে হয় তখন একটি দলের সঙ্গে যুক্ত হওয়া অত্যাবশ্যক।

তাঁকে শ্যামপুর থেকে প্রার্থী করা হয়েছিল কিন্তু তৃণমূলের কাছে হেরে যান অভিনেত্রী।

আরো পড়ুন : সেপ্টেম্বর মাস থেকে শুরু হতে চলেছে ইন্ডিয়ান আর্মি নিয়োগ প্রক্রিয়া!

RELATED ARTICLES

স্কুলে ‘সেক্স এডুকেশন’এর অভাব! ‘বেশ্যালয় কি?’ প্রশ্ন লারা দত্ত-...

জিজ্ঞাস্য প্রচুর লারা দত্তর কন্যার সায়রার। ছোট্ট সায়রা চার বছর বয়সেই ‘ডিভোর্স’ শব্দের মানে...

রাত্রে পার্টি তাই সকাল থেকে মেক আপ করতে ব্যস্ত...

রাত্রে পার্টি তাই সকাল থেকে মেক আপ করতে ব্যস্ত এই ছোট্ট মেয়েটি। পার্টি বলে...

‘হয় আমি, না হয় মটন’!! নিরামিষাশী বরের আজব দাবি...

'হয় আমি, না হয় মটন'!! নিরামিষাশী বরের আজব দাবি নতুন বউয়ের কাছে। খাসির মাংস...

Must Read

রাত্রে পার্টি তাই সকাল থেকে মেক আপ করতে ব্যস্ত...

রাত্রে পার্টি তাই সকাল থেকে মেক আপ করতে ব্যস্ত এই ছোট্ট মেয়েটি। পার্টি বলে...

‘হয় আমি, না হয় মটন’!! নিরামিষাশী বরের আজব দাবি...

'হয় আমি, না হয় মটন'!! নিরামিষাশী বরের আজব দাবি নতুন বউয়ের কাছে। খাসির মাংস...

বাদাম বিক্রেতার পরে এবার ভাইরাল হল মুর্শিদাবাদের খাজা বিক্রেতার...

এবার বাদাম বিক্রেতার পর ভাইরাল হল মুর্শিদাবাদের খাজা বিক্রেতার কবিতা। মাত্র দিন কয়েক আগেই নিজের...