Homeceleb lifeটলিউডের প্রিয় দম্পতি নীল-তৃণার সম্পর্ক ভাঙ্গতে চান তৃতীয় ব্যক্তি !

টলিউডের প্রিয় দম্পতি নীল-তৃণার সম্পর্ক ভাঙ্গতে চান তৃতীয় ব্যক্তি !

- Advertisement -

দীর্ঘ ১২ বছর ধরে প্রেমের সম্পর্কের পর বৈবাহিক জীবনে আবদ্ধ হলেন টলিউড ইন্ডাস্ট্রির জনপ্রিয় অভিনেতা নীল ভট্টাচার্য ও অভিনেত্রী তৃণা সাহা। তাঁদের বিয়ের পর ৭মাস কেটে গেছে দাম্পত্য জীবনের। প্রায়শই তাঁরা সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁদের সুখের দাম্পত্য জীবনের ছবি পোস্ট করতে থাকেন। তবে এরইমধ্যে জানা যায় তাঁদের সম্পর্ক অনেকবার ভাঙতেও চেয়েছেন কিছু বাইরের মানুষেরা।

অভিনেত্রী তৃণা সাহা এক সংবাদমাধ্যমের সাক্ষাৎকারে বলেন যেহেতু বিয়ের আগে থেকেই শ্বশুর বাড়ির সকলকেই তাঁর সঙ্গে মধুর সম্পর্ক তাই কখনো তৃণার মনে হয়নি নিজের বাড়িতে সে যেভাবে যত্নে থাকতো এখানে তাঁর কোন ত্রুটি আছে। এছাড়াও তিনি বলেন নীলের মা নাকি তাঁকে ঘরের কোন কাজই করতে দেন না। নিজের শ্বশুরের প্রশংসা করেন তৃণা। অভিনেত্রীর কথা অনুযায়ী নীলের বাবা নাকি দারুণ সুস্বাদু মুরগির মাংস রান্না করেন। তাই তিনি সংবাদমাধ্যমকে বলেন স্টার জলসার ‘ খড়কুটো ‘ ধারাবাহিকের গুনগুন যেমন শ্বশুরবাড়ি পেয়ে খুব খুশি বাস্তবে তৃণাও শ্বশুরবাড়ি নিয়ে ঠিক তেমনি খুশি।

নীল আর তৃণা মধ্যে একটি সুন্দর বন্ডিং আছে। তৃণার নিজের বন্ধুদের সাথে থাকলে নীল তাঁকে কোনরকম ভাবে বিরক্ত করেন না ঠিক তেমনি নীল তাঁর বন্ধুদের সঙ্গে থাকলে তৃণা তাঁকে স্পেস দেন। অভিনেত্রী খুব সুন্দর রান্না করতে পারেন আর তাঁর হাতের রান্না খেতে নীল ভট্টাচার্য খুব পছন্দ করেন। বিশেষ করে তৃণার হাতের তৈরি নানা রকম মিষ্টি খেতে খুব ভালোবাসেন। আবার এদিকে বিভিন্ন রকম বাহারি শরবত তৈরিতে ওস্তাদ নীল। তৃণা রান্না করলে নীল বাসন মেজে বউকে সাহায্য করেন।

তাঁদের দুজনেরই বক্তব্য অনুযায়ী টলিউডে কাজ করার ফলে অনেকেই নাকি তাঁদের সম্পর্ক ভাঙতে চেয়েছেন। অনেকে তাঁদের সম্পর্কে মিথ্যে কথা বলে সম্পর্কের বিশ্বাস ভাঙতে চেয়েছেন। তবে তাঁরা কেউই এই সমস্ত কথায় কোন পাত্তা দেননি নিজেদের বিশ্বাস অটুট রেখে সম্পর্কের বন্ধনকে মজবুত করে রেখেছেন। রোজকার জীবনে যাই ঘটে সমস্ত কথা একে অপরকে শেয়ার করেন যাতে তাঁদের সম্পর্কে কোন তৃতীয় ব্যক্তি ঢুকতে না পারে।

Image Source : Instagram

আরোপড়ুন :বৃদ্ধ বাবার মুখ সেলাই করে রেললাইনে ফেলে রেখে মারার অভিযোগ উঠল ছেলের বিরুদ্ধে

আরোপড়ুন :এখন মাত্র ৪৯৯ টাকাতেই হতে পারেন Ola Electric Scooter এর মালিক, কীভাবে করবেন বুকিং

- Advertisement -

Must Read

এক ঝলকে দেখে নিন ২০২১-এর মহালায়া ও দুর্গা পুজো-র নির্ঘন্ট!

গোটা একটা বছর ধরে করোনার জেরে সমস্ত পুজো আচ্ছা সব বন্ধ হয়ে গিয়েছে। আগের বছরে সেভাবে কোন পুজো আচ্ছা হয়নি। বাঙালি সবথেকে বড় পুজো অর্থাৎ...