HomeTechGadgetsজীবন্ত বিড়ালকে টেলিফোনে বদলে আন্তর্জাতিক সম্মান পান দুই মার্কিন বিজ্ঞানী

জীবন্ত বিড়ালকে টেলিফোনে বদলে আন্তর্জাতিক সম্মান পান দুই মার্কিন বিজ্ঞানী

ম্যাজিকের দ্বারা আমরা আশ্চর্যকর অনেক কিছুই দেখতে পাই। তবে জীবন্ত প্রাণী যে সত্যিকারের টেলিফোনে বদলে যেতে পারে এমন ঘটনা শুনলে কেউ বিশ্বাসই করতে চাইবে না। ঠিক এই রকমই একটি ঘটনা ঘটিয়ে ছিলেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের দুই খ্যাতনামা বিজ্ঞানী। কোনরকম ম্যাজিক করে নয় বিজ্ঞানের অভিনব প্রযুক্তির দ্বারাই তাঁরা জীবন্ত বিড়ালকে টেলিফোনে বদলে দিয়েছিলেন।

১৯২৯ সালে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে প্রিন্সটন বিশ্ববিদ্যালয়ে কিংবদন্তি বিজ্ঞানী আর্নেস্ট গ্লেন ওয়েভার ও তাঁর সহকারী অধ্যাপক চার্লস উইলিয়াম ব্রে স্নায়ুতন্ত্র নিয়ে গবেষণা করছিলেন। মানুষের স্নায়ুতন্ত্রের মধ্যে যে অডিটারি নার্ভ বা শ্রুতি স্নায়ু আছে তাঁর কাজ কি সেই নিয়েই পরীক্ষা করতে গিয়ে এক অদ্ভুত গবেষণা করলেন ওই দুই মার্কিন বিজ্ঞানী। এই পরীক্ষায় তাঁরা ঠিক করলেন জীবিত কোন প্রাণীর মস্তিষ্ক থেকে শ্রুতি স্নায়ু নিয়ে দেখা হবে সেটি আদেও কোন কাজ হচ্ছে কিনা।

এরপর কয়েক দিনের মধ্যেই শুরু হলো তাঁদের গবেষণা। আর এই পরীক্ষাটি করার জন্য বেছে নেওয়া হল উয়িলিয়াম ব্রে -র বাড়ির পোষা বিড়ালকে। প্রথমে বিড়ালটিকে উচ্চমাত্রার ঘুমের ওষুধ খাইয়ে তার মাথার খুলি খুলে ফেলা হলো। তারপর ওই বিড়ালটির মস্তিষ্কের লোকটাকে শ্রুতি স্নায়ু বিচ্ছিন্ন করার পর টেলিফোনের রিসিভারে একটি তারের মধ্য দিয়ে যুক্ত করে দেওয়া হল। এর ফলে বিড়ালটির শ্রবণেন্দ্রিয় ট্রান্সমিটার হয়ে উঠল।

এই গোটা পরীক্ষাটাই জটিল হলেও ওই দুই মার্কিন বিজ্ঞানী গবেষণায় সফল হন। গবেষণারপর দেখা যায় ওয়েভার বিড়ালের মুখের কাছে গিয়ে কোন কথা বললে উইলিয়াম ব্রে তা ৫০ মিটার দূরে একটি সাউন্ডপ্রুফ ঘরে বসেই শুনতে পাচ্ছিলেন। এরপর তাঁরা গবেষণাটি নিশ্চিত করতে আরেকটি পরীক্ষা করেন। এই দ্বিতীয় পরীক্ষাটিতে তাঁরা শ্রুতি স্নায়ুর থেকে রক্ত চলাচল বন্ধ করে দেয়। এরপরে দেখা যায় তাঁরা কোন রকম যোগাযোগ করতে পারেনি টেলিফোনে। শুধু এতেই থামেননি তাঁরা এরপরেও মস্তিষ্কের বিভিন্ন অংশ দিয়ে এ পরীক্ষা করলে ব্যর্থ হন। এর মাধ্যমেই তাঁরা বুঝতে পারেন শ্রুতি স্নায়ু কেবলমাত্র মস্তিষ্কে শব্দ প্রেরণ করে আর বাকি কাজ কানের মধ্যে অবস্থিত বিশেষ হাড়ের সজ্জা ও দেহাংশ করে।

এই পরীক্ষার পর ওই দুই মার্কিন বিজ্ঞানী গোটা বিশ্বে ক্যাট-টেলিফোন নিয়ে সাড়া ফেলে দিয়েছিলেন। এমনকি গবেষণা সেই সময় বিভিন্ন পত্রিকাতেও ছাপা হয়েছিল। তবে সেই সময় শোনা গিয়েছিল সমাজকর্মী ও প্রাণী অধিকার কর্মীরা এই গবেষণার প্রতিবাদ করেছিলেন। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য সোসাইট অফ এক্সপেরিমেন্টাল সাইকোলজিস্ট সংস্থার তরফ থেকে ওই দুই মার্কিন বিজ্ঞানীকে সম্মান দেওয়া হয়েছিল এবং জানা যায় ওই দুই বিজ্ঞানী প্রথম হাওয়ার্ড ক্রসবি ওয়ারেন পদকের সম্মান পান।

Image Source : Wikipedia

আরোপড়ুন :OLX-এ ৮ হাজার টাকার এসি বিক্রি করতে গিয়ে ৫০ হাজার টাকা খোয়ালেন যুবক!

আরোপড়ুন :পর্নোগ্রাফি শ্যুটের অপরাধে গ্রেপ্তার শিল্পা শেট্টির স্বামী রাজ কুন্দ্রা!

RELATED ARTICLES

জেনে নিন গুগল ম্যাপসের এই পাঁচটি ফিচারের কথা যা...

নিজের শহরের অজানা জায়গা এক্সপ্লোর করার শখ তো অনেকেরই রয়েছে। কিন্তু নতুন জায়গায় ঘোরাফেরা...

আগামীকালই বাড়তে চলেছে এয়ারটেল রিচার্জ প্ল্যান ! জেনেনিন কি...

এয়ারটেল(Airtel) গ্রাহকদের জন্য দুঃসংবাদ।আর মাত্র কয়েকটা ঘন্টা তারপরই বাড়তে চলেছে রিচার্জ প্ল্যান। মোটামুটি প্রত্যেকটি...

একটা সময় রসগোল্লার ডি এন এ টেস্ট নিয়ে মেতে...

নরম তুলতুলে গোল গোল মিষ্টি,রসে সাদা গোলার দিকে সবার যায় দৃষ্টি; হাঁড়ি ভর্তি আনলে...

ভিকির প্রেমেই মজেছে ক্যাট ! জল কতদূর গড়াচ্ছে তাঁদের...

বলি টাউনে পা রাখার সাথে সাথেই সলমনের প্রেমে পাগল হয়ে গেলেও বেশিদিন সেই সম্পর্কে...

প্রসেনজিতের ৫৮ তম জন্মদিনে জেনে নিন অভিনয়ের পাশাপাশি তিনি...

দু'দশক ধরে টলিউড ইন্ডাস্ট্রির অতি জনপ্রিয় অভিনেতা হলেন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়। তাঁর অভিনয় দক্ষতায় তিনি...

ওয়েব সিরিজ দেখে জালিয়াতি ! গ্রেফতার পাঁচ যুবকের একটি...

ওয়েব সিরিজ দেখে সুন্দর করে অপরাধের ছক কষে রাতারাতি সাফল্য পেয়ে আয়েশি জীবন যাপন...