Homeceleb lifeঠিক কী কারণে লতা মঙ্গেশকর (Lata Mangeshkar) নিজের ভালোবাসাকে বিয়ে করতে পারেননি?

ঠিক কী কারণে লতা মঙ্গেশকর (Lata Mangeshkar) নিজের ভালোবাসাকে বিয়ে করতে পারেননি?

লতা মঙ্গেশকর (Lata Mangeshkar) ঠিক কে সেটা নতুন করে বলার আর কোন জায়গা নেই কারণ প্রত্যেকে আমরা চিনি এই গায়িকাকে।

এঁনাকে ‘কুইন অফ মেলোডি’ (Queen of Melody) এবং ‘নাইটিঙ্গাল অফ ইন্ডিয়া’ (Nightingale of India) বলা হয়ে থাকে।

এক কথায় বলা যেতে পারে ইনি হলেন এই ইন্ডাস্ট্রির সবচেয়ে সম্মানীয় এবং প্রিয় ব্যক্তি।

লতা মঙ্গেশকরের (Lata Mangeshkar) ঝুলিতে রয়েছে একাধিক পুরস্কার,

এবং তাঁকে গোটা ভারত জুড়ে সবাই চেনে কারণ তিনি ৩৬টিরও বেশি ভাষায় গান গেয়েছেন।

সম্প্রতি ১৯৮৯ সালে তাঁকে দাদা সাহেব ফালকে পুরস্কার (Dada Saheb Phalke Award) দিয়ে সম্মানিত করা হয়।

এরপর ২০০১ সালে তাঁকে সর্বোচ্চ বেসামরিক পুরস্কার, ভারতরত্ন (Bharat Ratna) দিয়ে সম্মানিত করা হয়েছিল।

গোটা বিশ্ব জুড়ে লতা মঙ্গেশকরের (Lata Mangeshkar) অগুনতিক ফ্যান ফলোয়ার্স (fan followers) রয়েছে,

তাঁদের প্রত্যেকের মুখে একটাই প্রশ্ন যে তিনি কেন কোনদিন বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হলেন না?

আসলে তিনি কোনদিন বিয়ে করেননি তার পেছনে দুটি কারণ রয়েছে।

পরিবারের মধ্যে তিনি ছিলেন সবচেয়ে বড় সন্তান যার ফলে সংসারের সমস্ত দায়িত্ব ছিল তাঁর উপরে।

তাঁর বাকি ভাই বোন অর্থাৎ মীনা (Meena), আশা (Asha), উষা (Usha) এবং হৃদয়নাথ (Hridaynath),

অনেকটাই ছোট ছিল লতা মঙ্গেশকরের (Lata Mangeshkar) থেকে।

জানা যায়, অল্প বয়সে গায়িকার বাবা হৃদরোগে (Heart attack) আক্রান্ত হয়ে মারা যান। তখন গায়িকার বয়েস ছিল মাত্র ১৩ বছর।

দ্বিতীয় কারণ গায়িকার বিয়ে না করার পিছনে হল তিনি ডুঙ্গারপুর রাজবংশের (Dungarpur dynasty) ছেলে মহারাজা রাজ সিংহের (Maharaja Raj Singh) সাথে সম্পর্কে ছিলেন,

যা আদপে কোনোদিন পরিণতি পায়নি।

মহারাজা রাজ সিংহ একজন ক্রিকেটপ্রেমী (Cricket lover) ছিলেন,

এবং দীর্ঘ ১৬ বছর ধরে ক্রিকেটকে (cricket) নিজের ধ্যান জ্ঞান মনে করে বসেছিলেন।

What exactly is the reason Lata Mangeshkar could not marry her love?

এছাড়াও দীর্ঘ ২০ বছর ধরে সে বোর্ড অফ কন্ট্রোল ফর ক্রিকেট ইন ইন্ডিয়া (Board of Control for Cricket in India) (বিসিসিআই) (BCCI)

মহারাজা রাজ সিংহ (Maharaja Raj Singh) ছিল লতা মঙ্গেশকরের (Lata Mangeshkar) ভাই হৃদয়নাথের (Hridaynath) একজন ঘনিষ্ঠ বন্ধু।

যার কারণে সে মাঝেমধ্যেই লতা মঙ্গেশকরের (Lata Mangeshkar) বাড়িতে আসতেন সেখান থেকে তাঁদের আলাপ-পরিচয় শুরু হয়।

ধীরে ধীরে তাঁদের সম্পর্ক প্রেমে পরিণত হয় তাঁরা বিবাহ করার সিদ্ধান্ত নেয়,

কিন্তু এই বিয়ের জন্য রাজি ছিলেন না রাজ সিংহের (Maharaja Raj Singh) বাবা মহারাওয়াল লক্ষ্মণ সিংহজি (Maharawal Lakshman Singhji)।

What exactly is the reason Lata Mangeshkar could not marry her love?

তাঁর বক্তব্য ছিল যে লতা মঙ্গেশকরের (Lata Mangeshkar) একজন সাধারণ বাড়ির মেয়ে ছিল,

তাঁর ছেলের বিয়ে হবে কোন রাজকীয় পরিবারের (Royal family) মেয়ের সাথে।

বাবার কথাকে সন্মান দিয়ে মহারাজা রাজ সিংহ (Maharaja Raj Singh) লতা মঙ্গেশকরকে (Lata Mangeshkar) বিবাহ করেননি।

মহারাজা রাজ সিংহ (Maharaja Raj Singh) সিদ্ধান্ত নেই সেও জীবনে বিয়ে করবে না। তাঁরা একে ওপরের সাথে বন্ধু হিসেবে থাকবে।

২০০৯ সালে মহারাজা রাজ সিংহ (Maharaja Raj Singh) মৃত্যুবরণ করেন কিন্তু তিনি তাঁর কথা থেকে অনড় ছিলেন।

কথায় আছে না সব ভালোবাসা বিয়ে পর্যন্ত যেতে পারে না অথবা পূর্ণতা পেতে পারে না।

এঁনাদের ক্ষেত্র এমনটাই হয়েছে এবং একথা এঁনাদের জন্য প্রযোজ্য।

আরো পড়ুন : জিঙ্কের(Zinc) ওষুধ নয় প্রতিরোধক্ষমতা বাড়াতে খাবারের তালিকায় রাখুন এই খাবারগুলি

RELATED ARTICLES

আসুন জেনে নি বিশ্বের তিনটি সবথেকে নিষ্ঠুর নারীদের বিষয়ে!!

নারীর হৃদয় কোমল হৃদয় কিন্তু সেখানে যদি একবার ও হিংস্রতা বাসা বাধে তাহলে কি...

ইতিহাসের চারটি রহস্যময় হারিয়ে যাওয়া শহর!!

পৃথিবী সৃষ্টি হবার পর থেকেই সৃষ্টি হয় নানা শহর ও সভ্যতার এবং তার পতন...

বিয়ের মণ্ডপে বিয়ে ক্যানসেল!! এ কেমন ঘটনা!!

বিয়ের মণ্ডপ থেকে মেয়ে পালিয়ে যাওয়া বা বর পালিয়ে যাওয়া এতো খুব সাধারণ ঘটনা। প্রত্যেকটা...

ছত্রিশগড়ের টপ ট্রেন্ডিং গানে কোমর দোলালেন ছোট্ট খুদে! ভাইরাল...

বর্তমানে ফেসবুক এবং ইনস্টাগ্রাম জুড়ে ভাইরাল হয়েছে ছত্রিশগড়ের টপ ট্রেন্ডিং গান 'মোহিনী'। আপনি অনায়াসেই বিভিন্ন...

জাগ্রত পক্কানেশ্বরী মাতাকে রাগিয়ে দিলেই হয়ে উঠতেন ভয়ঙ্করী, কেড়ে...

আমাদের দেশে বিভিন্ন জাগ্রত কালীমাতা এবং কালী মাতার মন্দির রয়েছে, তবে বর্তমানে এক অন্যতম...

গরম থেকে স্বস্তি পেতে বাড়িতে বানান আমসত্ত্ব আইস্ক্রিম, মাত্র...

বৈশাখ মাস পড়তে না পড়তেই তড়তড়িয়ে বাড়ছে গরমের পারদ। আর এইখান থেকে স্বস্তি পেতে...