HomeEntertainmentকলকাতার বিখ্যাত ছয়টি খাবারের নাম শুনলে আপনার জিভে জল আসবেই!

কলকাতার বিখ্যাত ছয়টি খাবারের নাম শুনলে আপনার জিভে জল আসবেই!

- Advertisement -

কলকাতার বিখ্যাত ছয়টি খাবারের নাম শুনলে আপনার জিভে জল আসবেই!

কলকাতা হলো এমন একটি শহর যেটি প্রত্যেকটি বাঙালির কাছে অত্যন্ত প্রিয়।

কলকাতা এমন একটি জায়গা যেখানে আপনি না খেয়ে থাকবেন না, কিছু না কিছু ঠিকই জুটে যাবে।

ধরুন আপনি কলকাতাতে এসেছেন অথচ পকেটের মাত্র পাঁচটা টাকা, তাহলে কি সারাটা দিন আপনার না খেয়েই কেটে যাবে?

না একেবারেই তা নয় এই পাঁচ টাকায় হয়ে উঠতে পারে আপনার একবার আহার।

অবাক লাগলেও বাস্তবে কিন্তু এই দৃশ্য আমরা প্রতিনিয়ত দেখে চলেছি।

তবে আজ আপনাদেরকে কলকাতায় এমন কয়েকটি খাবারের নাম বলব যেগুলো নাম শুনলে জিভে আপনার জল আসবেই।

১. মাছের ঝোল :

বাঙালি খেতে বসেছে আর পাতে মাছ পড়েনি এমন দেখতেই পাবেন না!

মাছ ভাজা হোক কিংবা মাছের ঝাল বা মাছের ঝোল বাঙালি এগুলো খেতে বড়োই ভালোবাসে।

পাতলা ঝোল থেকে শুরু করে ঝোলে ঝোলে অম্বলে প্রত্যেকটা জিনিসের ভালোবাসে বাঙালি।

২. কষা মাংস :

বাঙালি রান্নার যদি আপনি পরখ করতে চান তবে একবার হলেও এই বাঙালির কষা মাংস আপনাকে ট্রাই করতেই হবে।

এর সাথে সাদা ভাত হোক কিংবা বাসন্তী পোলাও জাস্ট জমে যাবে।

৩. লুচি :

রবিবারের সবার প্রিয় জলখাবার হল লুচি। লুচির সঙ্গে কিন্তু কচুরি বাঁকুড়া গুলিয়ে ফেললে চলবে না।

লুচি মানে বাঙালির অন্যতম একটি খাওয়ার। নরম ময়ামে মাখা পাতলা পাতলা করে গরম গরম ফুলকো লুচি জাস্ট ফাটাফাটি।

৪. আলুর তরকারি :

বাড়িতে কোন সময় সবজি না থাকলে মা কাকিমারা সহজে বানিয়ে ফেলতেন আলুর তরকারি।

মুড়ি হোক কিংবা লুচি সবেতেই আলুর তরকারি হিট। শুধু একটু কালো জিরে আর কাঁচা লঙ্কা ব্যাস।

৫. ছোলার ডাল :

লুচি খাবেন আর ছোলার ডাল খাবেন না এটা আবার হয় নাকি?

লুচির সাথে তো ছোলার ডাল চাই চাই। এরা একে অপরকে ছাড়া ইনকমপ্লিট।

৬. শুক্তো :

তেতো কিন্তু অনেকেই খেতে ভালোবাসেন না কিন্তু তারাও শুক্তো ভালোবাসেন।

সব রকমের সব্জির সাথে বড়ি আহা গরম ভাতে জমে যাবে।

এগুলো ছাড়াও কলকাতার আরো কয়েকটি বিখ্যাত খাবারের নাম হল রসগোল্লা, সন্দেশ, চমচম আর মিষ্টি দই।

এই প্রত্যেকটা খাবার ছাড়া বাঙালি সত্যিই অসম্পূর্ণ।

আরো পড়ুন : একুশের মঞ্চ থেকে দিল্লি দখলের ডাক মমতার।

- Advertisement -

Must Read

এক ঝলকে দেখে নিন ২০২১-এর মহালায়া ও দুর্গা পুজো-র নির্ঘন্ট!

গোটা একটা বছর ধরে করোনার জেরে সমস্ত পুজো আচ্ছা সব বন্ধ হয়ে গিয়েছে। আগের বছরে সেভাবে কোন পুজো আচ্ছা হয়নি। বাঙালি সবথেকে বড় পুজো অর্থাৎ...